অর্ধেকে নেমে এলো বাংলায় এসএমএস খরচ

রবিবার, ফেব্রুয়ারি 21 2021
এখন বাংলায় এসএমএস করা যাবে অর্ধেক খরচে।
BTRC


আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস -২০২১ উপলক্ষে বাংলায় এসএমএস পাঠানোর খরচ অর্ধেক করা হয়েছে। সম্প্রতি এই সেবাটির উদ্বোধন করেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী জনাব মোস্তফা জব্বার। সকল ভাষা শহিদ ও মুক্তিযুদ্ধের শহিদদের সন্মান প্রদর্শন পূর্বক চালু করা হয় এই সেবা। এখন থেকে ভ্যাট ব্যতিত বাংলায় এসএমএস প্রেরনের সর্বোচ্চ ব্যয় হবে ২৫ পয়সা। প্রাথমিক ভাবে গ্রামীনফোন ও টেলিটক এই সেবাটি চালু করেছে। তবে ৩১ মার্চ ২০২১ তারিখের মধ্যে সব অপারেটরেই মিলবে এই সেবা।

শনিবার বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রন কমিশন (বিটিআরসি) আয়োজিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, বিশ্বের ৩৫ কোটি মানুষ বাংলায় কথা বলে এবং এটি বিশ্বের চতুর্থ মাতৃভাষা। তিনি বলেন, যে দেশে ভাষার জন্য এতো মানুষ প্রাণ দিয়েছে সেই দেশের সর্বস্তরে বাংলাই চালু করা উচিত। অর্ধেক খরচে বাংলায় এসএমএস সেবা চালু করায় তিনি বিটিআরসি এবং অপারেটরদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এখন থেকে বিদেশে চিঠিপত্র প্রেরণ ছাড়াও দেশের সর্বস্তরে যোগাযোগের মাধ্যম হিসেবে বাংলা ব্যাবহারের উদ্যোগ গ্রহণ করবে। এর পাশাপাশি আমদানিকৃত ও দেশে উৎপাদিত সকল মোবাইলে বিল্ট ইন বাংলা সফটওয়্যার রাখার ও নির্দেশ দেন। এছাড়াও তিনি জানান, আগামী স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যে মোবাইল ফিনান্সিয়াল সার্ভিস নগদ তাদের লেনদেন এসএমএস গুলো বাংলায় করবে। অনেক গ্রাহকেরই ইংলিশ এসএমএস বুঝতে অসুবিধা হয়।এক্ষেত্রে প্রতারনারও শিকার হয় অনেকে।তাই বাংলায় এসএমএস চালুর এই সেবাটি দেশের সব শ্রেণী ও পেশার মানুষের জন্যই সুবিধাজনক হবে।

অনুষ্ঠানে কমিশনের মহাপরিচালক বলেন, কোন অপারেটর চাইলে ২৫ পয়সার চেয়ে কমেও এই সেবাটি দিতে পারে। এতে অন্যান্যদের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন ইঞ্জিনিয়ারিং এবং অপারেশনস বিভাগের কমিশনার প্রকৌশলী মোঃ মহিউদ্দিন আহমেদ, বিটিআরসির লীগ্যাল অ্যান্ড লাইসেন্সিং বিভাগের কমিশনার আবু সৈয়দ দিলজার হুসেইন, স্পেকট্রাম বিভাগের কমিশনার এ.কে.এম শহিদুজ্জামান সহ বিটিআরসি ও মোবাইল অপারেটরদের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ।
share on