আইফোন ১২ যেকারণে চার্জারবিহীন!

বৃহস্পতিবার, অক্টোবর 15 2020
অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক।
image: Apple


ফাইভজি প্রযুক্তির আইফোন ১২ চারটি সংস্করণে বিশ্ববাজারে আসছে শীঘ্রই। গতকাল যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাপল পার্কে অনুষ্ঠিত উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী টিম কুক। তিনি বলেন, “ডাউনলোড ও আপলোডের ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা যোগ করবে ফাইভ জি। উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন ভিডিও সম্প্রচার, সংবেদনশীল গেমিং এবং যোগাযোগের মাত্রায় নতুনত্ব নিয়ে আসবে এই প্রযুক্তি।“

অ্যাপলের নতুন ১২ সিরিজের আইফোনের প্রো ম্যাক্স সংস্করণে থাকছে অ্যাপলের উদ্ভাবিত এ১৪ বায়োনিক চিপ, ৫জি প্রযুক্তি এবং লিডার স্ক্যানার সেন্সর। আইফোন ১২ এ আরো থাকছে ওয়্যারলেস ম্যাগনেটিক চার্জিং প্রযুক্তি এবং অ্যামোলড ডিসপ্লে পর্দার সুরক্ষায় বিশেষ সিরামিক শিল্ড। প্রথমবারের মত এবার আইফোনের সাথে থাকছেনা কোনো চার্জার কিংবা হেডফোন। অ্যাপল বলছে, পরিবেশের ওপর নেতিবাচক প্রভাব কমাতেই এমন সিদ্ধান্ত। আইফোনের পাশাপাশি অ্যাপল নিয়ে এসেছে নতুন সংস্করণের ‘হোমপড মিনি’। সমসাময়িক অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের তুলনায় স্মার্ট স্পিকারের দিক থেকে পিছিয়ে থাকা অ্যাপল হোমপড তাদের নতুন সংস্করণে ব্যাপক পরিসরে উচ্চ মানের ভয়েস কমান্ড চালু করেছে। মাত্র ৯৯ ডলারে পাওয়া যাবে অ্যাপলের এই স্মার্ট স্পিকার।

অ্যাপলের নতুন চারটি আইফোন সংস্করণ আইফোন ১২ মিনি, আইফোন ১২, আইফোন ১২ প্রো এবং আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্সের বাজার মূল্য যথাক্রমে ৬৯৯, ৭৯৯, ৯৯৯ এবং ১০৯৯ মার্কিন ডলার। আইফোন ১২ মিনি এবং আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্সের প্রি-অর্ডার শুরু হচ্ছে ৬ নভেম্বর থেকে। ডিভাইস দুটি বিশ্ববাজারে আসবে চলতি বছরের ১৩ই নভেম্বর। অন্যদিকে আইফোন ১২ এবং আইফোন ১২ প্রো’র প্রি-অর্ডার শুরু হবে ১৬ অক্টোবর। ডিভাইস দু’টি বাজারে আসবে ২৩ অক্টোবর। সংস্করণগুলোর মধ্যে ডিসপ্লে পর্দার আকার বাদেও ৫জি প্রযুক্তি এবং লিডার স্ক্যানারে তারতম্য থাকছে। উল্লেখ্য, অ্যাপলের সবচেয়ে বড় আকারের আইফোন হতে যাচ্ছে আইফোন ১২ প্রো ম্যাক্স।

share on