বিটিআরসি-র হুঁশিয়ারি, নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হচ্ছে নকল অনুমোদনবিহীন হ্যান্ডসেট

সোমবার, সেপ্টেম্বর 21 2020
বৈধ মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট ক্রয় সংক্রান্ত সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তি
ছবি: অ্যাডসকালেক্ট/যুগান্তর


শুল্ক ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে আমদানীকৃত এবং নকল মোবাইলের ব্যাবহার রুখতে নেটওয়ার্ক হতে এসকল হ্যান্ডসেট বিচ্ছিন্নকরনে ব্যাবস্থা নিতে যাচ্ছে বাংলাদেশ সরকার। মোবাইল অপারেটর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি-র ফেসবুক পেইজে এ বিষয়ে সরকারের পরিকল্পনার কথা জানা যায়।

সম্প্রতি শীর্ষস্থানীয় দৈনিক পত্রিকা যুগান্তরে প্রকাশিত “বৈধ মোবাইল ফোন হ্যান্ডসেট ক্রয় সংক্রান্ত সতর্কীকরণ বিজ্ঞপ্তি” এর মাধ্যমে গ্রাহকদের হ্যান্ডসেট ক্রয়ের পূর্বে বৈধতা যাচাই করার আহ্বান জানায় বিটিআরসি। বিটিআরসির স্পেকট্রাম বিভাগের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মহাম্মদ ফয়সাল স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘২০১৯ সনের ১লা আগস্ট এবং তার পরবর্তী সময়ে মোবাইল নেটওয়ার্কে সংযুক্ত যেকোনো অবৈধ, নকল, অনুমোদনবিহীন, এবং ক্লোন আইএমইআই সম্বলিত হ্যান্ডসেট নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন করা হবে।‘ এছাড়াও মোবাইল হ্যান্ডসেট ক্রয়ের পূর্বে বৈধতা যাচাইয়ে মোবাইল ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে KYD ১৫ ডিজিটের IMEI নম্বর লিখে ১৬০০২ তে প্রেরণ করতে হবে। এক্ষেত্রে ১৫ ডিজিটের IMEI নম্বর পেতে হ্যান্ডসেটের বক্সে কিংবা *#06# ডায়াল করে জানা যাবে। তাৎক্ষণিকভাবে ফিরতি মেসেজে বিনামূল্যে সংশ্লিষ্ট হ্যান্ডসেটের বৈধতা সম্পর্কিত তথ্য পাওয়া যাবে।

নকল বা ক্লোন আইএমইআই সম্বলিত মোবাইল হ্যান্ডসেট দেশের যেকোনো মোবাইল নেটওয়ার্কে সংযুক্ত হলে ন্যাশনাল ইকুইপমেন্ট আইডেন্টি রেজিস্ট্রারের (এনইআইআর) মাধ্যমে নেটওয়ার্ক থেকে বিচ্ছিন্ন করা হবে বলে পূর্বেই গ্রাহকদের সতর্ক করেছিলো বিটিআরসি। অবৈধ উপায়ে আমদানীকৃত অসাধু মোবাইল ফোন ব্যাবসায়ীদের রুখতে এবং চুরি কিংবা ছিনতাই হওয়া হ্যান্ডসেট নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন করতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ব্যাবহৃত হচ্ছে এই প্রযুক্তি। এই প্রযুক্তিতে গ্রাহকদের মোবাইল ফোনের আইএমইআই নম্বর রাষ্ট্রয়ত্ত্ব ডাটাবেজে সংরক্ষনের মাধ্যমে অন্যান্য সুবিধাও পাওয়া যাবে বেশ সহজে।
share on