টেলিকম ব্যবসায় আসছে অ্যামাজন?

রবিবার, জুন 02 2019
অ্যামাজন
vox


রয়টার্সের মতে, টেলিকম ব্যবসায় প্রবেশ করতে যাচ্ছে অ্যামাজন। বিশ্বের সবচেয়ে বড় ই-কমার্স ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটি ক্লাউড কম্পিউটিং, শিপিং, মুদি, ফার্মাসিউটিকাল ও অন্যান্য ব্যবসার পাশাপাশি টেলিকম ব্যবসায় প্রবেশ করতে যাচ্ছে। তারা মোবাইল অপারেটর স্প্রিন্ট থেকে প্রিপেইড ফোন ব্র্যান্ড বুস্ট মোবাইল কেনার কথা বিবেচনা করছে।

তবে এই চুক্তি নিয়ে কিছু সমস্যা আছে বলে জানা গিয়েছে। এই চুক্তিটি তখনই সম্ভব হবে যদি স্প্রিন্ট টি-মোবাইলের সাথে তাদের ২৬ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি সম্পাদনের অনুমোদন পায় এবং কোম্পানি দুটি একসাথে যুক্ত হতে পারে। যদি এই দুটি চুক্তিই সম্পন্ন হয় তাহলে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মোবাইল ক্যারিয়ার গুলোর সংখ্যা চার থেকে মাত্র তিনে নেমে আসবে।

স্প্রিন্ট মোবাইল ও টি-মোবাইল যথাক্রমে যুক্তরাষ্ট্রের তৃতীয় ও চতুর্থ বৃহত্তম টেলিকম কোম্পানি এবং যদি তারা একত্রিত হয় তাহলে এটি বাজারের প্রতিযোগিতাকে প্রভাবিত করবে। কোম্পানি দুটি একত্রে তখন আর দুটি কোম্পানি এটিএন্ডটি ও ভেরাইজনের সাথে বাজার দখলের লড়াইয়ে প্রতিযোগিতা করবে। যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল কমিশন থেকে বলা হয়েছে, তারা স্প্রিন্ট ও টি-মোবাইলের একীভূতকরণের ব্যপারে ইতিবাচক। কমিশন থেকে আরও জানানো হয় এক্ষেত্রে কোম্পানিগুলোকে কিছু শর্ত মানতে হবে। যার মধ্যে অন্যতম হলো বুস্ট মোবাইলের বিক্রি। যদিও বিচার বিভাগ থেকে এই চুক্তিকে এখনও অনুমোদন দেওয়া হয় নি। এই চুক্তির বিরোধীদের মতে, এই চুক্তির ফলে পণ্যের বাজার মূল্য বৃদ্ধি পাবে এবং শ্রমিকদের পারিশ্রমিক কমে যাবে। তবে স্প্রিন্ট মোবাইল থেকে একটি বিবৃতিতে বলা হয়, যদি এই চুক্তি হয়ে যায় তবে তারা আগামী তিন বছর কোনো কিছুর দাম বৃদ্ধি করবে না । এবং একই সময়ের মধ্যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় ৯৭ শতাংশ জনসংখ্যাকে আচ্ছাদন করতে পারে এমন একটি ৫জি নেটওয়ার্ক স্থাপনের জন্য প্রতিশ্রুতিবদ্ধ হবে। তবে ব্লুমবার্গ এই সপ্তাহে প্রকাশকৃত তাদের এক প্রতিবেদনে জানায়, বিচার বিভাগের অনেকেই এই চুক্তির বিরুদ্ধে। কারন তারা তিনটির বদলে চারটি কোম্পানিই রাখতে চান যাতে সাধারন জনগনের কাছে চারটি বিকল্পই থাকে। সেক্ষেত্রে অবশ্য যদি অ্যামাজন বুস্টকে কিনে নেয় তাহলে এই চুক্তির আর কোনো বাধা থাকছনা । তখন চতুর্থ ক্যারিয়ার হিসেবে বুস্ট বাজারে প্রবেশ করবে।

রয়টার্সের মতে যদি অ্যামাজন বুস্ট কিনতে চায় তাহলে তাদেরকে ছয় বছরেরে জন্য কোম্পানিটির সংযুক্ত ওয়্যারলেস নেটওয়ার্ক ও অন্যান্য সুবিধাগুলো ব্যবহার করতে হবে। অ্যামাজন অবশ্য এই ব্যপারে এখনও কোনো অমত করে নি। কারন কোম্পানিটির মূল লক্ষ্যই হলো বিভিন্ন দিক দিয়ে তাদের ব্যবসা সম্প্রসারন করা। তবে এই সম্পর্কে ই-কমার্স এই কোম্পানিটির কাছে জানতে চাওয়া হলে কোম্পানিটি এখনই কোনো মন্তব্য করতে রাজি হয় নি।
share on