গ্যালাক্সি এস৮-এ থাকছে গ্যালাক্সি নোট ৭ এর ওয়াই-ওসিটিএ ডিসপ্লে
গ্যালাক্সি এস৮-এ থাকছে গ্যালাক্সি নোট ৭ এর ওয়াই-ওসিটিএ ডিসপ্লে
গ্যালাক্সি এস৭ এ প্রথম ব্যবহার করা হয়েছিল ওয়াই-ওসিটিএ ডিসপ্লে। জানা গেছে স্যামসাং তার আসন্ন ফ্ল্যাগশীপ ফোন গ্যালাক্সি এস৮ এ এই একই ডিসপ্লে ব্যবহার করবে।

গ্যালাক্সি এস৮-এ থাকছে গ্যালাক্সি নোট ৭ এর ওয়াই-ওসিটিএ ডিসপ্লে
গ্যালাক্সি এস৮-এ থাকছে গ্যালাক্সি নোট ৭ এর ওয়াই-ওসিটিএ ডিসপ্লে


গত কয়েক মাস ধরে আমরা গ্যালাক্সি এস৮ এর বিষয়ে নানান তথ্য শুনতে পেয়েছি। অনেকেই নোট ৭ এর কথা স্মরণ করে দেখতে চাইছেন এবার স্যামসাং তাদের এই ফোন নিয়ে কী করে। সম্প্রতি আমরা শুনেছি যে, এস৮ এ থাকতে পারে আরজিবি অ্যামোলেড স্ক্রিন। এই স্ক্রিন গ্যালাক্সি এস ২ তে ব্যবহার করা হয়েছিল। তবে এটা অস্পষ্ট ছিল যে, এই স্ক্রিন কী ৫.৭ ইঞ্চি কিম্বা ৬.২ ইঞ্চির ডিসপ্লেতে থাকবে, না কি দু’টোতেই ব্যবহার করা হবে।

আজ একটি সূত্র দাবী করেছে যে, স্যামসাং হয়তো কোয়াড এইচডি রেজ্যুলুশনের ৫.৭ ইঞ্চির ডিসপ্লেতে সুপার অ্যামোলেড প্যানেল ও ওয়াই-ওসিটিএ প্রযুক্তি ব্যবহার করবে যা তারা নোট ৭ এ-ও ব্যবহার করেছিল।

ওয়াই-ওসিটিএ হলো একটি নতুন উৎপাদন প্রক্রিয়া। এটির সাহায্যে স্যামসাং ডিসপ্লের জন্যে নির্ধারিত খরচ কমাতে পারে। শুধু তাই নয় এটি সংযুক্ত করার ফলে ফোনসেটের পুরুত্বও কমে যায় কারণ এতে স্ক্রিনের প্যানেলের সাথে টাচ সেন্সর জুড়ে দেয়া হয়। ফলে তাতে প্যানেল ও সুরক্ষা গ্লাসের মাঝে টাচ স্তর যুক্ত করতে হয় না। এতে করে স্যামসাংকে টাচ স্তরের জন্যে অন্য কোন উৎপাদন কোম্পানির উপর নির্ভরশীলও থাকতে হয় না। এভাবে স্যামসাং ডিসপ্লেকে আরো পাতলা করতে পারে এবং সম্পূর্ণ উৎপাদনের ব্যাপারটাই স্যামসাংয়ের নিজের হাতে থাকে।

যা হোক, এ তথ্য যদি সত্যি হয় তবে নোট ৭ এর চেয়ে আকারে ছোট হলেও গ্যালাক্সি এস৮ এ থাকবে তার সমান আকারের ডিসপ্লে। এমন হলে অবশ্য তাতে আরজিবি অ্যামোলেড প্যানেল থাকার সম্ভাবনাকেও উড়িয়ে দেয়া যায় না। কারণ সে ক্ষেত্রে ৬.২ ইঞ্চির এস৮ এর বড় ও বেজেল বিহীন সংষ্করণে এই বৈশিষ্ট্য যুক্ত হতে পারে।

আগামী ফেব্রুয়ারিতে অনুষ্ঠিতব্য মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ অবমুক্ত করবে। তাই আমাদের সঠিক তথ্য জানতে আর খুব বেশি অপেক্ষা করতে হবে না।